বার্নিকাটের সঙ্গে ষড়যন্ত্র করে সরকার ফেলতে চেয়েছিলেন ড. কামাল : আইনমন্ত্রী

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি।।
শিক্ষার্থীদের নিরাপদ সড়ক আন্দোলন ঘিরে মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্শা ব্লুম বার্নিকাটের সঙ্গে ষড়যন্ত্র করে সরকার ফেলে দিতে চেয়েছিলেন গণফোরম সভাপতি ড. কামাল হোসেন। শুক্রবার দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলার চারগাছ এনআই ভূঁঞা ডিগ্রি কলেজ মাঠে ১৫ আগস্ট উপলক্ষে আয়োজিত শোকসভায় আইনমন্ত্রী আনিসুল হক এমন অভিযোগ করেন।
তিনি বলেন, ড. কামাল মার্কিন রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে ষড়যন্ত্র করে সরকার ফেলে দিতে চেয়েছিলেন। যুক্তরাষ্ট্র কখনো আমাদের বন্ধু ছিল না। ১৯৭১ সালে পাকিস্তানিদের পক্ষ হয়ে আমাদের চরম বিরোধিতা করেছিল। এখনো তারা পাকিস্তানের দোসর বিএনপি-জামায়াতের পক্ষ হয়ে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে।
আইনমন্ত্রী বলেন, সম্প্রতি দুই সহপাঠীকে বাসচালক খুন করায় শিক্ষার্থীরা আন্দোলন করেছে। তারা সড়ক পরিবহন আইনের দাবি তুলেছে। তাদের যৌক্তিক আন্দোলনকে আমরা সমর্থন দিয়েছি এবং তাদের দাবি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে মন্ত্রিসভায় পরিবহন আইন পাস করেছি। কিন্তু বিএনপি-জামায়াত ও তাদের দোসররা ওই আন্দোলনকে উত্তাপ দিয়ে সরকার পতনের অপচেষ্টা করেছিল।
জাতীয় নির্বাচন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমাদের প্রধান নির্বাচন কমিশনার আশঙ্কা করছেন- আগামী নির্বাচনে হাঙ্গামা হতে পারে। আমি বলব- আপনার কমিশন ঠিক করে আপনি সুষ্ঠু নির্বাচন দেন।
‘আমাদের বাঙালি ভাই-বোনেরা কোনো অনিয়ম ছাড়াই ভোট দেবে। বাঙালি ভাইয়েরা অত্যন্ত সুশৃঙ্খল, আপনি ভয় পাবেন না। বাঙালিরা কখনো কোনদিন অনিয়ম করেনি। যদি অনিয়ম করে থাকে, কিছু কুচক্রিমহল অনিয়ম করেছে’ যোগ করেন আনিসুল হক।
মূলগ্রাম ইউপি আওয়ামী লীগ সভাপতি মো. শাহ আলমের সভাপতিত্বে শোকসভায় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, উত্তরা গ্রুপের চেয়ারম্যার মতিউর রহমান, উপজেলা চেয়ারম্যান আনিসুল হক, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক এমজি হাক্কানী, কাজী আজহারুল ইসলাম প্রমুখ।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *