তাবিথ আউয়ালকে দুদকের জিজ্ঞাসাবাদ

স্টাফ রিপোর্টার।।
জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জন ও সন্দেহজনক ব্যাংক লেনদেনের অভিযোগে বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য তাবিদ আউয়ালকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে দুদক। মঙ্গলবার (৮ মে) সকাল সাড়ে ১০টায় তাকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেন দুদকের উপপরিচালক আকতার হামিদ ভূঁইয়া। দুদকের উপপরিচালক (জনসংযোগ) প্রণব কুমার ভট্টাচার্য এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
তিনি বলেন, পূর্বনির্ধারিত সময় অনুযায়ী তাবিদ আউয়ালকে সকাল ১০টায় উপস্থিত থাকার কথা থাকলেও তিনি সকাল সাড়ে ৯টায় দুদক কার্যালয়ে এসে উপস্থিত হন। এরপর তাকে সাড়ে ১০টার দিকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেন।
এর আগে গত ২ এপ্রিল তাবিদ আউয়ালসহ বিএনপির ৮ জনের সন্দেহজনক ব্যাংক লেনদেন অনুসন্ধান শুরু করে দুদক।

এরপর গত ২৪ এপ্রিল আকতার হামিদ ভূঁইয়া স্বাক্ষরিত একটি চিঠি বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য তাবিদ আউয়ালকে পাঠানো হয়। ৮ মে সকাল ১০টায় তাকে দুদকে হাজির থাকতে বলা হয় ওই চিঠিতে।
প্রসঙ্গত, এর আগে গত ২ এপ্রিল বিএনপির ৮ শীর্ষ নেতার বিরুদ্ধে মানি লন্ডারিং, সন্দেহজনক ব্যাংক লেনদেনসহ অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগের বিষয়টি আমলে নিয়ে অনুসন্ধান শুরু করে দুর্নীতি দমন কমিশন।

যেসব নেতার বিরুদ্ধে অনুসন্ধান শুরু হয়েছে, তাঁরা হলেন দলটির স্থায়ী কমিটির চার সদস্য— ড.খন্দকার মোশাররফ হোসেন, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী ও মির্জা আব্বাস; দুই ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল আউয়াল মিন্টু, এম মোর্শেদ খান; যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি হাবিব উন নবী খান সোহেল এবং আবদুল আউয়াল মিন্টুর ছেলে ও দলের নির্বাহী কমিটির সদস্য তাবিথ আউয়াল।
সূত্র মতে, ৩০ দিনে এসব ব্যক্তির ব্যাংক হিসাব থেকে ১২৫ কোটি টাকার সন্দেহজনক লেনদেন হয়েছে বলে সম্প্রতি একটি গোয়েন্দা সংস্থার প্রতিবেদনের ওপর ভিত্তি করে গণমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হয়। সেই সূত্র ধরে অনুসন্ধানে নামে দুদক।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *