পা হারানো রোজিনার চিকিৎসায় মেডিকেল বোর্ড গঠন

স্টাফ রিপোর্টার
রাজধানীর বনানীতে বাসচাপায় পা হারানো তরুণী রোজিনা আক্তারের চিকিৎসায় ৯ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড গঠন করেছে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় বার্ন ইউনিটের অধ্যাপক ডা. আবুল কালামকে প্রধান করে এ বোর্ড গঠন করা হয়। বোর্ডের অপর সদস্যরা হলেন- বার্ন ইউনিটের সমন্বয়ক ডা. সামন্ত লাল সেন, বার্ন ইউনিটের অধ্যাপক ডা. সাজ্জাদ খন্দকার, ডা. রায়হানা আওয়াল, ডা. নওয়াজেশ খান, অর্থোপেডিক বিভাগের অধ্যাপক ডা. মো. শামসুজ্জামান, কিডনি বিভাগের অধ্যাপক ডা. নিজাম উদ্দীন চৌধুরী, রেসপাইরেটরি মেডিসিনের অধ্যাপক ডা. মহিউদ্দীন আহমেদ, বার্ন ইউনিটের সহযোগী অধ্যাপক ডা. লুৎফর কাদের লেলিন।
রোজিনার চিকিৎসায় গঠিত মেডিকেল বোর্ডের সদস্য ডা. নওয়াজেশ খান বলেন, রোজিনাকে বৃহস্পতিবার অপারেশন থিয়েটারে নেওয়া হয়েছিল। তার পায়ের ব্যান্ডেজ খুলে দেখা হয়েছে তার উরু থেকে শরীরের জয়েন্ট অংশ পর্যন্ত কোনো চামড়া নেই। ওখানে চামড়া প্রতিস্থাপন করা লাগবে।
তিনি আরো বলেন, রোজিনার শরীরের অবস্থা আগের মতোই আছে। এরই মধ্যে সে জেনেছে তার একটা পা নেই। বিষয়টি জানার পর সে মানসিকভাবে ভেঙ্গে পড়েছে। এ মুহূর্তে তাকে সুস্থ করে তোলার বিষয়টি আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ।
গত ২০ এপ্রিল রাত সাড়ে ৮টার দিকে বনানীর চেয়ারম্যান বাড়িতে রাষ্ট্রীয় নিয়ন্ত্রাধীন বিআরটিসি’র (ঢাকা মেট্রো ব ১১-৫৭৩৩) ডাবল ডেকার বাস রোজিনা আক্তারকে ধাক্কা দেয়। রোজিনা পড়ে গেলে বাসটি তার ডান পায়ের ওপর দিয়ে চলে যায়। এতে রোজিনার ডান পা শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। পথচারীরা উদ্ধার করে তাকে জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতালে ভর্তি করেন। অর্থোপেডিক হাসপাতালে পাঁচদিন চিকিৎসার পর বুধবার রোজিনাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল স্থানান্তর করা হয়।
গাজী টেলিভিশন ও অনলাইন নিউজ পোর্টাল সারাবাংলা ডটনেটের এডিটর-ইন-চিফ সৈয়দ ইশতিয়াক রেজার গৃহকর্মী রোজিনা আক্তার। রোজিনাকে বাসচাপা দেওয়ার ঘটনায় গাজী টেলিভিশনের স্টাফ রিপোর্টার মহিউদ্দিন আহমেদ রাজধানীর বনানী থানায় বাসচালকের বিরুদ্ধে মামলা করেন। ঘটনার দিনই বিআরটিসি’র ডাবল ডেকার বাসটি জব্দ ও বাসের চালক শফিকুল ইসলাম সুমনকে (৩২) গ্রেফতার করে পুলিশ।
###

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *