পর পর দুই বছর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ

স্পোর্টস ডেস্ক
গত বছর ইংল্যান্ডে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির আসর ছিল দারুণ জমজমাট। কিন্তু সাফল্যের পরও অনিশ্চিত এই টুর্নামেন্টের ভবিষ্যৎ। আগামী চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির জায়গায় আইসিসি আয়োজন করবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। টি-টোয়েন্টির এই বিশ্ব আসর তাই আয়োজিত হবে পর পর দুই বছর।

আগামী চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি হওয়ার কথা ছিল ২০২১ সালে ভারতে। সেটির বদলেই এখন হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। ২০২০ সালে আগামী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আসর বসবে অস্ট্রেলিয়ায়। বৃহস্পতিবার কলকাতায় আইসিসির সভায় চূড়ান্ত হয়েছে এই বদল।

এর আগে ২০০৯ ও ২০১০ সালেও পরপর দুটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ হয়েছিল ইংল্যান্ড ও ওয়েস্ট ইন্ডিজে। সেবার কারণ হিসেবে বলা হয়েছিল, আইসিসি ওয়ানডে বিশ্বকাপ ও চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির সঙ্গে একই বছর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ হওয়া এড়াতেই ২০১০ সালে আরেকটি বিশ্বকাপের আয়োজন।

২০০৭ সালে প্রথম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বছরে ছিল ওয়ানডে বিশ্বকাপও। ২০০৯ সালে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বছরে ছিল চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিও।

তখন দুই বছর পরপর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ হওয়ার কথা ছিল। ২০১০ থেকে টানা চারটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ হয়েছিল ২ বছর অন্তর। তবে ২০১৬ সালে ভারতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর ঠিক হয়েছিল এই টুর্নামেন্টও আয়োজন করা হবে চার বছর পর পর। এবার সেই ঘোষণা থেকেও সরে এল আইসিসি।

আইসিসি সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, বেশি দলকে বিশ্ব আসরে খেলার সুযোগ দিতেই এই পরিবর্তন। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে অংশ নেয় ১৬ দল, চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে ৮টি।

সভায় ২০১৯ থেকে ২০২৩ পর্যন্ত ভবিষ্যত সফরসূচিও চূড়ান্ত করেছে আইসিসি। বহুল আলোচিত আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ও ওয়ানডে লিগ অনুমিতভাবেই পেয়েছে চূড়ান্ত অনুমোদন।

২০১৯-২০২৩ ভবিষ্যৎ সফর সূচিতে উল্লেখযোগ্য আসর:

আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ: ২০১৯, ২০২৩

আইসিসি ওয়ার্ল্ড টি-টোয়েন্টি: ২০২০, ২০২১

আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ: প্রথম চক্র – ২০১৯-২০২১; দ্বিতীয় চক্র- ২০২১-২০২৩

আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপের বাছাই লিগ: ২০২০-২০২২

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *