নারী নির্যাতনের মামলা : মডেল-অভিনেতা কাজী আসিফ কারাগারে

স্টাফ রিপোর্টার

স্ত্রীর করা নারী নির্যাতনের মামলায় মডেল-অভিনেতা কাজী আসিফুর রহমান আসিফকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। গতকাল সোমবার ঢাকার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-২-এর বিচারক শফিউল আজম এ আদেশ দেন। এর আগে রোববার রাতে হযরত শাহজালাল (র.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ইমিগ্রেশন থেকে তাকে গ্রেফতার করে হাজারীবাগ থানা পুলিশ।

সরকারি কৌঁসুলি আলী আকবর সাংবাদিকদের জানান, আসামি কাজী আসিফকে গ্রেফতারের গতকাল সোমবার আদালতে হাজির করা হলে তার আইনজীবী জামিনের আবেদন করেন। সে আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারক ২৫ এপ্রিল জামিন শুনানির জন্য দিন নির্ধারণ করে আসিফকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

হাজারীবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর আলিমুজ্জামান বলেন, গত ৩ মার্চ আসিফের স্ত্রী নিম্ম আদালতে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা করেন। সে মামলার পরিপ্রেক্ষিতে আদালত গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে থানায় পাঠান। এর ভিত্তিতেই রোববার রাত ১২টার দিকে শাহজালাল বিমানবন্দরের ইমিগ্রেশন থেকে তাকে গ্রেফতার করে সোমবার আদালতে হাজির করা হয়। এ সময় আসিফ মালয়েশিয়া থেকে দেশে ফিরছিলেন। গ্রেফতারের পর তাকে থানায় নিয়ে আসা হয়। গতকাল সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে তাকে কোর্টে পাঠানো হয়। এরপর  আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিলে তাকে কেরানীগঞ্জ কারাগারে নেয়া হয়েছে।

আসিফের স্ত্রী অর্নি রহমান বলেন, গত ৬ মার্চ আসিফের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন মামলা দায়ের করা হয়। আসিফ-অর্নির দাম্পত্য জীবনে আট মাস বয়সী একপুত্র সন্তান রয়েছে। নাম আজওয়াহ রহমান খান। অর্নির অভিযোগ, আসিফ কোনোভাবে সন্তানকে দেখাশোনা করে না। ২০১৫ সালের ৭ আগস্ট কাজী আসিফ ও অর্নি রহমানের বিয়ে হয় পারিবারিকভাবে। তখন জানা গিয়েছিল, হঠাৎ তাদের বিয়ে হয়।  অর্নি পেশায় কানাডার নিবন্ধিত নার্স।

মডেল ও অভিনেতা আসিফকে ছোট পর্দায় নিয়মিত অভিনয় করতে দেখা যায়। বেশ কিছু পণ্যের বিজ্ঞাপনে কাজ করে পরিচিতি পেয়েছেন তরুণ এই মডেল। ২০১৫ সালে তার অভিনীত ‘ঘাসফুল’ চলচ্চিত্র মুক্তি পায়।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *